ভর্তি মেলা উপলক্ষে নানামাত্রায় সুযোগ সুবিধা দিচ্ছে ইউডা

64 Shares

ইউনিভার্সিটি অব ডেভেলপমেন্ট অল্টারনেটিভ (ইউডা) স্নাতক (সম্মান) স্নাতকোত্তর ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের জন্য আয়োজন করেছে ভর্তিমেলা, ২০১৯। মেলায় ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের মেধা ও তাদের অভিভাবকের আয়ের ভিত্তিতে টিউশন ফি নির্ধারণ, ভর্তি ফিস এর উপর ৫০০০ টাকা পর্যন্ত ক্যাশ ব্যাক সুবিধা, বিনা বেতনে অধ্যায়ন, জিপিএ ৫ পাওয়া শিক্ষার্থীদের মাসিক টিউশন ফি এর শতকরা ৫০ ভাগ ওয়েভারসহ আছে নানান সুবিধা। মেলা চলবে আজ (১৩ জানুয়ারি থেকে ১৯ জানুয়ারি পর্যন্ত)।

গতকাল (রোববার) সকাল ১১টায় ইউডার সিএসই ভবনে মেলার উদ্বোধন করেন ইউনিভার্সিটি অব ডেভেলপমেন্ট অল্টারনেটিভ ইউডা এর উপাচার্য অধ্যাপক ড. রফিকুল ইসলাম শরীফ। অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য ড. আহমদুল্যাহ মিয়া, ট্রেজারার (ভারপ্রাপ্ত) এম ইউসুফ আলী, রেজিস্ট্রার ড. ইফফাত কায়েস চৌধূরী, বিভিন্ন অনুষদের ডিন, বিভিন্ন বিভাগের চেয়্যারমান, শিক্ষক, কর্মকর্তা ও ইউডার শিক্ষার্থীবৃন্দ।


মেলা উপলক্ষ্যে ভর্তি ফি এর উপর ৫০০০ টাকা পর্যন্ত ক্যাশ ব্যাক সুবিধা, মুক্তিযোদ্ধা কোটায় শতকরা ৩ (তিন) ভাগ শিক্ষার্থীদের বিনা বেতনে অধ্যয়নের সুযোগ, প্রত্যন্ত ও অনুন্নত অঞ্চলের মেধাবী অথচ দরিদ্র এমন শিক্ষার্থীদের শতকরা ৩ (তিন) ভাগ বিনা বেতনে অধ্যয়নের সুযোগ, পরিবারের আয়ের ভিত্তিতে টিউশন ফি নির্ধারনের সুযোগ (শর্ত প্রযোজ্য), এস এস সি ও এইচ এস সি উভয় পরীক্ষার ফলাফলে জিপিএ-৫ প্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের মাসিক টিউশন ফি এর উপর ৫০% ওয়েভার সুবিধা, একটিতে জিপিএ-৫ প্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের মাসিক টিউশন ফি এর উপর ২৫% ওয়েভার সুবিধা, আদিবাসী সন্তানদের জন্য মাসিক টিউশন ফি এর উপর ১৫% ওয়েভার সুবিধা। শিল্প, সাহিত্য, সংস্কৃতি ও খেলাধুলায় বিশেষ পারদর্শিতা অর্জনের জন্য বিশেষ বৃত্তির ব্যবস্থা, শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীর সন্তানদের বৃত্তি প্রদানসহ ভাষা শহীদ ও বীর শ্রেষ্ঠদের নামে চালু হওয়া বৃত্তি দেওয়া অব্যাহত থাকবে।
ভর্তি মেলায় ইউডার ভিসি অধ্যাপক ড. রফিকুল ইসলাম শরীফ বলেন, বাণিজ্যিক দৃষ্টিভঙ্গি থেকে এ বিশ্ববিদ্যালয় পরিচালনার রীতি অতীতেও ছিলো না, ভবিষ্যতেও থাকবে না। শিক্ষাকে সাধারণের জন্য সহজলভ্য করা নাগরিক অধিকার মনে করি। তাই এবারের ভর্তিমেলা উপলক্ষে অন্যান্যবারের ন্যায় শিক্ষার্থীদের আমরা নানা দিক থেকে সুবিধা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি যাতে এ বিশ্ববিদ্যালয় প্রকৃত মেধাবী, অদম্য গরীব মেধাবীরা যেন উচ্চ শিক্ষায় সুযোগ পায়। আমরা ইতোপূর্বেই ঘোষণা দিয়েছি প্রয়োজনে পারিবারিক আয় ও শিক্ষার্থীর এসএসসি, এইচএসসির মেধার অর্জিত ফলাফলের ভিত্তিতে অভিভাবকের সঙ্গে আলোচনা সাপেক্ষে তার ভর্তি ও মাসিক বেতন নির্ধারণ করব। তবুও শিক্ষাকে আমরা সবার জন্য সহজলভ্য করতে চাই।
সকাল ০৯টা থেকে বিকেল ০৫টা পর্যন্ত ৩/সি সাত মসজিদ রোড (ইউডা সিএসসি বিল্ডিং) এবং ৮০, সাত মসজিদ রোড (রেজিস্ট্রার ভবন), ধানমন্ডিতে ভর্তি হওয়া যাবে।

64 Shares