বিসিএস পরীক্ষার্থীর অর্ধেকই ভুগছেন মানসিক সমস্যায়- গবেষণা উগ্র’র!

28 Shares

৥ ক্যাম্পাস ডেস্কঃ

বিসিএস এদেশের লাখ লাখ তরুণের কাছে সোনার হরিণ। প্রত্যেক বিসিএসেই কয়েক লক্ষ পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে থাকে, এর প্রতিযোগিতার প্রস্তুতি পর্ব অনেকের ক্ষেত্রে  বিশ্ববিদ্যালয় জীবনের শুরু থেকেই। কিন্তু প্রতিযোগিতায় অংশ নেওয়াদের মধ্য থেকে অল্প সংখ্যকই চাকুরি পেয়ে থাকেন। ফলে পরীক্ষার্থীদের একটা বড় অংশ বারবার সাফল্যের চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়ে ভুগেন মানসিক সমস্যায়। এমন তথ্যই উঠে এসেছে আন্ডারগ্রাজুয়েট রিসার্চ অর্গানাইজেশন (উগ্র)-র সম্প্রতি এক গবেষণায়। সাইকিয়াট্রি গবেষণায় জগতখ্যাত জার্নাল ‘ফ্রন্টিয়ারস ইন সাইকিয়াট্রি’তে তাদের এই গবেষণাপত্রটি এ সপ্তাহে প্রকাশিত হয়।

রাজশাহী শহরের ৪০ তম বিসিএস পরীক্ষার জন্য প্রস্তুতি নেয়া শিক্ষার্থীদের ওপর পরিচালিত জরিপের ভিত্তিতে প্রকাশিত গবেষণার ফলাফলে দেখা যায়, বিসিএস পরীক্ষায় অংশ নেয়া প্রায় অর্ধেক শিক্ষার্থী ডিপ্রেশন ও দুশ্চিন্তায় ভুগছেন। আরো প্রায় ত্রিশ শতাংশ শিক্ষার্থী মানসিক চাপের সম্মুখীন। যাঁরা পরিবার কিংবা সামাজিক চাপের কারণে বা অন্য চাকরির অনিশ্চয়তার জন্য কিংবা অন্য চাকরির পাশাপাশি বিসিএস পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করছেন, তাঁরা বেশি মানসিক সমস্যায় ভুগে থাকেন। অপরদিকে যাঁরা মনে করেন বিসিএস চাকরির নিরাপত্তা বেশি এবং এর মাধ্যমে দেশের সেবা করা সম্ভব, তাঁদের মধ্যে ডিপ্রেশন, দুশ্চিন্তা ও মানসিক চাপ কম থাকে।

এ বিষয়ে গবেষক আব্দুর রাফির বলেন, “আমাদের তরুণ প্রজন্ম যেভাবে বিসিএসের প্রতিযোগিতায় ঝুঁকছেন, তাতে তাঁদের মানসিক স্বাস্থ্য হুমকির মুখে পড়ছে। ক্যারিয়ার, পরিবার, সমাজের নানাবিধ জটিলতায় তাঁরা প্রতিনিয়ত হিমশিম খাচ্ছেন। এমনকি অনেকে আত্মহত্যার চিন্তাও করছেন। তাঁদের মানসিক সুস্থতার সার্বিক চিত্র পেতেই গবেষণাটি করা হয়েছে।”

এই গবেষণা দলের সুপারভাইজার ও “আন্ডারগ্রাজুয়েট রিসার্চ অর্গানাইজেশন” এর প্রতিষ্ঠাতা মোহাম্মদ আবদুল্লাহ মামুন ক্যাম্পাস ফিচারকে বলেন, “সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকেই আমরা গবেষণাটি করেছি। এতে আমরা বেশ কিছু মনোসামাজিক দিক তুলে ধরেছি। আমাদের এই গবেষণার ফলাফল বিসিএস পরীক্ষার্থীদের মানসিক সুস্থতার যে ভয়াবহতা প্রতিফলিত করেছে, সেটা কোনো দেশে বিরাজ করে বলে আমার জানা নেই। তাই আশা করবো, আমাদের ফলাফল আমলে নিয়ে নীতিনির্ধারকগণ এই বিপুল সংখ্যক তরুণ জনগোষ্ঠীর মানসিক স্বাস্থ্য রক্ষায় যথাযথ পদক্ষেপ নেবেন।”

 

28 Shares